স্পেনে দুই দফা সন্ত্রাসী হামলা নিহত ১৪

344

সম্প্রতি স্পেনের বার্সেলোনায় এক সন্ত্রাসী হামলায় বহু মানুষের ভিড়ে দ্রুতগতির গাড়ি উঠিয়ে দেওয়ায় অসংখ্য মানুষ হতাহত হয়েছে। পর্যটকদের কাছে আকর্ষণীয় বিনোদনকেন্দ্র লাস রামব্লাসে বৃহস্পতিবারের এই হামলায় অন্তত ১৩ জন নিহত এবং শতাধিক আহত হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন দেশটির কাতালান প্রদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জোয়াকিম ফর্ন। এদিকে স্পেনের আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ক্যামব্রিলস শহরে দ্বিতীয় দফা সন্ত্রাসী হামলা নস্যাৎ করে দিলেও বার্সেলোনা থেকে ৭৫ মাইল দূরের এই শহরে হামলায় আহত এক নারী শুক্রবার মারা যাওয়ার পর দুই হামলা মিলিয়ে নিহতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে মোট ১৪ জন।

ক্যামব্রিলস শহরে এদিন সকালের দিকে পুলিশের গুলিতে ৫ সন্দেভাজন সন্ত্রাসীও নিহত হয়। হামলাকারীরা একটি গাড়ি নিয়ে লোকজনকে চাপা দেওয়ার চেষ্টা করার একপর্যায়ে গাড়ি উল্টে গেলে সন্ত্রাসীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষের সময় গুলিতে ৫ সন্দেভাজন সন্ত্রাসী নিহত হয়।

এদিকে এই হামলার দায় স্বীকার করে আইএসের কথিত সংবাদ সংস্থা আমাক বলেছে, তাদের সৈনিকরা এ হামলা চালিয়েছে।

স্পেনের এই দুই সন্ত্রাসী হামলায় হতাহতদের মধ্যে রয়েছে ৩৫ দেশের নাগরিক। দেশগুলোর মধ্যে রয়েছে: অস্ট্রেলিয়া, আলজেরিয়া, মরোক্কো, কানাডা, কলম্বিয়া, মিশর, হন্ডূরাস, হাঙ্গেরি, মৌরতানিয়া, ডোমিনিকান রিপাবলিক, জার্মানি, অস্ট্রিয়া, আর্জেন্টিনা, বেলজিয়াম, চীন, কলম্বিয়া, কিউবা, ইকুয়েডর, স্পেন, যুক্তরাষ্ট্র, ফিলিপাইন, ফ্রান্স, যুক্তরাজ্য, গ্রীস, নেদারল্যান্ডস, আয়ারল্যান্ড, ইতালি, কুয়েত, মেসিডোনিয়া, পাকিস্তান, পেরু, রোমানিয়া, তাইওয়ান, তুরস্ক ও ভেনেজুয়েলা।

অবশ্য এই সন্ত্রাসী হামলায় বাংলাদেশিদের কোনো হতাহতের খবর এখনো পর্যন্ত জানা যায়নি। এই হামলার নিন্দা জানিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প জানিয়েছেন, স্পেনবাসীকে সহায়তা করতে যা প্রয়োজন তার সর্বোচ্চ তারা করবেন। নিহতদের জন্য শোকপ্রকাশ করে যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে বলেছেন, সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে স্পেনের পাশে থাকবে ব্রিটেন। এই হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়ে স্পেনের প্রতি সহমর্মিতা প্রকাশ করেছেন ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রো ও জার্মানির চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা ম্যার্কেল।

প্রসঙ্গত, গত বছরের ১৪ জুলাই ফ্রান্সের নিস শহরে বাস্তিল দিবসের উৎসবে যোগ দিতে আসা মানুষের ভিড়ে ট্রাক উঠিয়ে দিয়ে ৮৬ জনকে হত্যার এক বছরের মাথায় একই ধরনের দুটি সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটলো স্পেনে। এর আগে ২০০৪ সালের মার্চে স্পেনের মাদ্রিদের কমিউটার ট্রেনে জঙ্গিদের বোমা হামলায় ১৯১ জন নিহত হয়েছিল।

You might also like More from author

Leave A Reply

Your email address will not be published.