অস্ট্র্রেলিয়ায় হঠাৎ বাড়লো বিদ্যুতের দাম

424

বাংলা কাগজ ডেস্ক

অস্ট্রেলিয়ার নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুতের প্রয়োজন মেটায় এদেশের সরকারি ও বেসরকারি বিদ্যুৎ সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠানগুলো। কিন্তু হঠাৎই বিদ্যুতের দাম বাড়ানোর ঘোষণা দিয়েছে দেশের সবচেয়ে বড় তিনটি বিদ্যুৎ সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান। ১ জুলাই থেকে ১৬.১ শতাংশ হারে বিদ্যুতের দাম বাড়ানোর কথা জানিয়েছে অস্ট্রেলিয়ার শীর্ষ বিদ্যুৎ সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান ‘অরিজিন’। মূল্যবৃদ্ধির এই ধারায় বাসাবাড়ির বিদ্যুৎ বিলে বাৎসরিক প্রায় ৩১০ অস্ট্রেলিয়ান ডলার বৃদ্ধি পাবে। তবে বিদ্যুতের বর্তমান যে মূল্য, তা মেটাতে গিয়ে এরই মধ্যে স্বল্পআয়ের অনেকেই মাসের বাজেট থেকে তাদের এক বেলার খাবারের খরচ কাটছাঁট করছেন বলেই মন্তব্য করছেন অধিকাংশ মানুষ।
এজিএল, এনার্জি অস্ট্রেলিয়া ও অরিজিন- এ তিনটি প্রতিষ্ঠান অস্ট্রেলিয়ার নিউ সাউথ ওয়েলস প্রদেশের ৯০ ভাগেরও বেশি বিদ্যুতের যোগান দেয়। প্রতিষ্ঠানগুলো গতবছর বিদ্যুতের ওপর ৮ শতাংশ এবং গ্যাসে সাড়ে ৮ শতাংশ মূল্যবৃদ্ধি করে।
অরিজিন জানিয়েছে, তারা দিনপ্রতি কিলোওয়াটে ৩২ সেন্ট করে দাম বাড়াচ্ছে। আর বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধির এই ধাক্কা সামলাতে হিমশিম খাচ্ছে এখানকার অনেক পরিবার। দারিদ্র্যসীমার নিচে বসবাসকারী ৪৪০ জনের ওপর করা এক জরিপে দেখা গেছে, এদের ৩৬ ভাগ দন্তচিকিৎসকের কাছে যাওয়া বন্ধ করে দিয়েছেন। ২৫ ভাগ ডাক্তারের সাক্ষাৎ নেওয়া বাতিল করেছেন এবং ২২ শতাংশ তাদের কয়েক বেলার খাবার বাদ দিচ্ছেন। হঠাৎ বিদ্যুৎ-এর মূল্য বৃদ্ধি তাদের মাসিক বাজেটের বাইরে চলে গেছে। আর বাড়তি আয় না থাকায় বিদ্যুৎ বিল পরিশোধের অর্থ জমাতেই তারা এমনটা করেছেন বলে জানান অনেকেই।
এ নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে নিউ সাউথ ওয়েলসের সমাজকর্মী ট্রসি হোয়ে জানিয়েছেন, অনেকে খাবার খেতে পারছেন না শুধু বিদ্যুৎ বিল পরিশোধের জন্য, এটা সত্যিই দুঃখজনক। সরকারের এ নিয়ে কাজ করা উচিত।
বিদ্যুতের দাম বাড়ার কারণ প্রসঙ্গে অরিজিনের এক কর্মকর্তার ভাষ্য হচ্ছে, অস্ট্রেলিয়ায় অভিবাসীদের সংখ্যা ক্রমেই বৃদ্ধি পাচ্ছে, যার জন্য প্রচুর নতুন বৈদ্যুতিক সংযোগের প্রয়োজনে ‘পিলার’ ও ‘তার’ কিনতে তাদের বিপুল অর্থ ব্যয় হচ্ছে। তাই উপায়ন্তর না পেয়েই বিদ্যুতের দাম বাড়িয়েছেন তারা।
এখানকার বেশিরভাগ বাংলাদেশিরা স্বল্পআয়ের মানুষ, বিদ্যুতের এই হঠাৎ দাম বাড়ার কারণে বাড়তি বিলের অর্থ যোগাতে তাঁদেরও কষ্ট হবে বলেই জানিয়েছেন অনেকে।
তথ্যসূত্র: দ্য সিডনি মর্নিং হেরাল্ড

You might also like More from author

Leave A Reply

Your email address will not be published.