অস্ট্রেলিয়ায় বেকারত্ব কমলেও পূর্ণকালীন চাকরির অভাব বাড়ছে

397

সম্প্রতি অস্ট্রেলিয়ার বেকারত্বের হার কমে পাঁচ দশমিক ছয় শতাংশে নেমে এসেছে। শুধু জুলাই মাসে প্রায় ২৮ হাজার চাকরির সুযোগ তৈরি হয়েছে। জুন মাসে বেকারত্বের হার ছিল পাঁচ দশমিক সাত শতাংশ। গতমাসে ২৭ হাজার ৯০০ নতুন চাকরি যুক্ত হওয়াতে খ-কালীন চাকরি বেড়েছে ৮ হাজার ২০০ আর ২০ হাজার ৩০০ পূর্ণকালীন চাকরি কমেছে।
২০১৩ সালের এপ্রিলের পর থেকে অস্ট্রেলিয়ার জনসংখ্যা অনুসারে বেকারত্বের হার ছিল সর্বোচ্চ। দ্য ব্যুরো অব স্ট্যাটিসটিকস (এবিএস) জুন মাসের বেকারত্বের হিসাব পুন:নীরিক্ষা করে এই হার পাঁচ দশমিক সাত নির্ধারণ করেছে। কিন্তু জুন মাসে তা পাঁচ দশমিক ছয়ে এসে স্থির হয়েছে।
এ সময় কাজে নিয়োজিত বা চাকরির সন্ধানে থাকা অংশগ্রহণকারী সংখ্যা সামান্য বেড়ে ৬৫ দশমিক এক শতাংশ হয়েছে। তবে জুলাই মাসে নতুন চাকরির যেসব ক্ষেত্র তৈরি হয়েছে তার অধিকাংশই খ-কালীন। ২০ হাজার ৩০০ জন চাকরিজীবি তাদের পূর্ণকালীন পদ হারিয়েছে। কর্মঘণ্টার হিসেবে জুলাই মাসে কর্মঘণ্টা কমেছে দশমিক আট শতাংশ।
ব্যুরো অব স্ট্যাটিসটিকসের প্রধান অর্থনীতিবিদ ব্রুস হকম্যান জানান, আরও স্থায়ী পূর্ণকালীন চাকরির ট্রেন্ড টানা ১০ মাস ধরে বাড়তে দেখা গেছে। ২০১৬ সালের সেপ্টেম্বরের পর থেকে পূর্ণকালীন চাকরি বেড়ে দুই লাখ ২০ হাজার হলেও এ সময় আড়াই লাখ মানুষ বেকার হয়েছে। টিডি সিকিউরিটিজের এশিয়া প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের প্রধান পরিকল্পক অ্যানেটি জানিয়েছেন, পূর্ণকালীন চাকরির যে ট্রেন্ড তা কিছুটা নতুনত ও বিকাশমান বিভিন্ন শিল্প-কারখানার দিক থেকে এসেছে।
অস্ট্রেলিয়ার পূর্ণকালীন চাকরি মূলত পেশাদার শিল্প, অবকাঠামো ও স্বাস্থ্যখাতের, আর খ-কালীন চাকরির ক্ষেত্র তৈরি হয়েছে রিটেইল ও স্বাস্থ্যখাতে। গত বছরের তুলনায় এ বছর চাকরির বাজার গড়ে ২ দশমিক ২ শতাংশ বাড়ার বিষয়টি গত দুই দশকের চেয়ে বেশি। কর্মক্ষম হয়ে ওঠা জনসংখ্যার বৃদ্ধির তুলনায় চাকরির বাজার বাড়ার বিষয়টি শক্তিশালী। কিন্তু চাকরি বাড়লেও সাপ্তাহিক বেতন বাড়ছে না। গড়ে সাপ্তাহিক বেতন মোটে এক দশমিক ছয় শতাংশ বাড়তে দেখা গেছে।
এদিকে অস্ট্রেলিয়ার রাজ্যগুলোর মধ্যে বর্তমানে চাকরির বাজারের শীর্ষে আছে তাসমানিয়া। সম্প্রতি সেখানে অধিকসংখ্যক কর্মসংস্থান সৃষ্টি হয়েছে। ব্যুরো অব স্ট্যাটিকটিকস এর তথ্য অনুযায়ী, গত বছরের চেয়ে তাসমানিয়ায় ৪ শতাংশ, ভিক্টোরিয়ায় তিন দশমিক এক শতাংশ, কুইন্সল্যান্ডে দুই দশমিক সাত শতাংশ বেশি কর্মসংস্থান সৃষ্টি হয়েছে।
কর্মসংস্থানের এই প্রবণতার বিবেচনায় বছরের প্রথমার্ধে পাঁচটি বৃহত্তর রাজ্য থেকেই প্রতিমাসে পূর্ণকালীন কর্মসংস্থানের সুযোগ তৈরি হয়েছে। এর মধ্যে শীর্ষে আছে নিউ সাউথ ওয়েলস রাজ্য।
তথ্যসূত্র: এবিসি

You might also like More from author

Leave A Reply

Your email address will not be published.